ঢাকা ০৫:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রুপগন্জে কাঁচাবাজারে আগুন!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:২৩:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪
  • / ২৫ বার পড়া হয়েছে

রুপগন্জে কাঁচাবাজারে আগুন!

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাঁচাবাজারে ভয়াবহ আগুন লেগেছে। গত ২৩ মার্চ শনিবার দিবাগত রাত ৪ টার দিকে এই আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসে ১০ টি ইউনিট আগুন নেভানোর কাজ করছে।

বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজাহান শিকদার মিডিয়াকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, ভোর ৪ টায় আগুন লাগার খবর পেয়ে কিছুক্ষণের মধ্যেই আড়াইহাজার, কাঞ্চন নদী, ডেমরা ও পূর্বাঞ্চল ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিট সেখানে আগুন নিভানোর কাজ শুরু করে।

তবে রূপগঞ্জের কাঁচা বাজারের এই আগুন লাগার ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। কিভাবে এই আগুন লেগেছে সেটিও জানা যায়নি। তবে অনেকেই ধারনা করছেন বৈদ্যুতিক তার থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে। তবে বাজারে অবস্থিত মনোহারি ও মুদি দোকান গুলোর মধ্য শতাধিক দোকান পুড়ে গেছে।

রুপগন্জে কাঁচাবাজারে আগুন

আজ সকালে পাওয়া সংবাদ অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক ফখরুদ্দিন আহমেদ বলেন, আমাদের ইউনিটগুলো অনেক চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছে। এখন আমরা ডাম্পিং এর কাজ করছি।

যেহেতু আগুনের ভয়াবহতা অনেক তীব্র ছিল তাই আশেপাশে যাতে সেখান থেকে আগুন ছড়িয়ে না পড়ে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।

কাঁচা বাজার বা এই ধরনের এলাকায় আগুন লাগলে সেটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। তাছাড়া গভীর রাত হওয়ায় প্রত্যেকটি দোকানের শার্টার বন্ধ ছিল। আমাদের ফায়ার সার্ভিস টিমের লোকজন অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে সেই সকল শার্টার কেটে দোকানে প্রবেশ করে আগুন নেভানোর কাজ করেছে।

তাছাড়া এটি কাঁচাবাজার হিসেবে পরিচিত থাকলেও এর ভিতরে পেট্রোল, হার্ডওয়ার, টায়ার টিউবসহ নানা রকমের দোকান ছিল। যেগুলো মূলত এক ধরনের দাহ্য পদার্থ। তাই এগুলোর কারণে আগুনও ভয়াবহ রূপ ধারণ করে।

তবে কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সেটি পরে তদন্ত করে বলা যাবে। নারায়ণগঞ্জের ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির এসআই উত্তম জানান, রাতে বৃষ্টি হচ্ছিল, বৃষ্টি থামার পর সেহরির সময় মার্কেটে আগুনে সূত্রপাত ঘটে। মুহূর্তের মধ্যেই আগুন সারা বাজারে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়রা পুলিশ কন্ট্রোল রুম ও ফায়ার সার্ভিসকে আগুনের খবর দেয়।

কিছুদিন আগেও নারায়ণগঞ্জের বাবুবাজার কাপড়ের মার্কেটে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছিল। প্রায় ১০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে কাপড় ব্যবসায়ীরা। আবার দুইদিন আগেও চক বাজারে একটি জুতার কারখানায় আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

অগ্নিকাণ্ডের মতো ভয়াবহ দুর্ঘটনা যেকোনো কারণেই হতে পারে। যেমনটি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাঁচাবাজারে ঘটেছে। তাই আমরা যে যেখানে বাস করি না কেন বৈদ্যুতিক তার, গ্যাসের সিলিন্ডার ইত্যাদি বিপদজনক বস্তুগুলো সতর্কতার সহিত ব্যবহার করব।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রুপগন্জে কাঁচাবাজারে আগুন!

আপডেট সময় : ০৪:২৩:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাঁচাবাজারে ভয়াবহ আগুন লেগেছে। গত ২৩ মার্চ শনিবার দিবাগত রাত ৪ টার দিকে এই আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসে ১০ টি ইউনিট আগুন নেভানোর কাজ করছে।

বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজাহান শিকদার মিডিয়াকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, ভোর ৪ টায় আগুন লাগার খবর পেয়ে কিছুক্ষণের মধ্যেই আড়াইহাজার, কাঞ্চন নদী, ডেমরা ও পূর্বাঞ্চল ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিট সেখানে আগুন নিভানোর কাজ শুরু করে।

তবে রূপগঞ্জের কাঁচা বাজারের এই আগুন লাগার ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। কিভাবে এই আগুন লেগেছে সেটিও জানা যায়নি। তবে অনেকেই ধারনা করছেন বৈদ্যুতিক তার থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে। তবে বাজারে অবস্থিত মনোহারি ও মুদি দোকান গুলোর মধ্য শতাধিক দোকান পুড়ে গেছে।

রুপগন্জে কাঁচাবাজারে আগুন

আজ সকালে পাওয়া সংবাদ অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক ফখরুদ্দিন আহমেদ বলেন, আমাদের ইউনিটগুলো অনেক চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছে। এখন আমরা ডাম্পিং এর কাজ করছি।

যেহেতু আগুনের ভয়াবহতা অনেক তীব্র ছিল তাই আশেপাশে যাতে সেখান থেকে আগুন ছড়িয়ে না পড়ে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।

কাঁচা বাজার বা এই ধরনের এলাকায় আগুন লাগলে সেটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। তাছাড়া গভীর রাত হওয়ায় প্রত্যেকটি দোকানের শার্টার বন্ধ ছিল। আমাদের ফায়ার সার্ভিস টিমের লোকজন অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে সেই সকল শার্টার কেটে দোকানে প্রবেশ করে আগুন নেভানোর কাজ করেছে।

তাছাড়া এটি কাঁচাবাজার হিসেবে পরিচিত থাকলেও এর ভিতরে পেট্রোল, হার্ডওয়ার, টায়ার টিউবসহ নানা রকমের দোকান ছিল। যেগুলো মূলত এক ধরনের দাহ্য পদার্থ। তাই এগুলোর কারণে আগুনও ভয়াবহ রূপ ধারণ করে।

তবে কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সেটি পরে তদন্ত করে বলা যাবে। নারায়ণগঞ্জের ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির এসআই উত্তম জানান, রাতে বৃষ্টি হচ্ছিল, বৃষ্টি থামার পর সেহরির সময় মার্কেটে আগুনে সূত্রপাত ঘটে। মুহূর্তের মধ্যেই আগুন সারা বাজারে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়রা পুলিশ কন্ট্রোল রুম ও ফায়ার সার্ভিসকে আগুনের খবর দেয়।

কিছুদিন আগেও নারায়ণগঞ্জের বাবুবাজার কাপড়ের মার্কেটে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছিল। প্রায় ১০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে কাপড় ব্যবসায়ীরা। আবার দুইদিন আগেও চক বাজারে একটি জুতার কারখানায় আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

অগ্নিকাণ্ডের মতো ভয়াবহ দুর্ঘটনা যেকোনো কারণেই হতে পারে। যেমনটি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কাঁচাবাজারে ঘটেছে। তাই আমরা যে যেখানে বাস করি না কেন বৈদ্যুতিক তার, গ্যাসের সিলিন্ডার ইত্যাদি বিপদজনক বস্তুগুলো সতর্কতার সহিত ব্যবহার করব।