ঢাকা ০৫:১৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের মেয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:১৭:৫৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৮ বার পড়া হয়েছে

চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের মেয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

গত রবিবার যাত্রাবাড়ীর একটি আবাসিক হোটেল থেকে চলচ্চিত্র পরিচালক শাহানুর রহমান সোহান এর মেয়ে বৃষ্টির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। যাত্রাবাড়ী এলাকার রংধনু নামে একটি আবাসিক হোটেল থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

এব্যাপারে যাত্রাবাড়ী থানার দায়িত্বরত ওসি বিএম ফরমান আলী সাংবাদিকদের কে বলেন, আমরা খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছাই এবং লাশটি উদ্ধার করি। তার পরিচয় জানা যায় যে তিনি চলচ্চিত্র পরিচালক মরহুম সোহানুর রহমান সোহানের মেয়ে। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার পরিবারের লোকজন এসে উপস্থিত হয়।

রংধনু হোটেলের ম্যানেজার শান্ত সাংবাদিকদেরকে বলেন, আজকে দুপুর ২ঃ০০ টার দিকে বৃষ্টি অর্থাৎ সোহানের মেয়ে এখানে আসেন। তিনি যে চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমানের মেয়ে সেটি আমি জানতাম না। আমাদের হোটেলের নিয়ম অনুযায়ী তার জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেন। রুমে ঢোকার সময় তিনি বিছানার চাদর দিতে বলেন নামাজ পড়বেন বলে।

চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের মেয়ের ঝুলন্ত লাশ

তারপর বিকেলের দিকে আমাদের হোটেলের কর্মচারীকে ৪০০ টাকা দিয়ে বলেন ইফতারি এবং ঠান্ডা পানি দিতে। কিছুক্ষণ পর হোটেলের কর্মচারী তার রুমে ইফতারি দিতে গিয়ে দেখে কক্ষটি ভিতর থেকে বন্ধ। অনেক ডাকাডাকির পর কোন সারা শব্দ না পেয়ে দরজা সামান্য ফাঁক করে ভিতরে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়। সাথে সাথেই আমরা পুলিশে খবর দেই।

চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমানের মেয়ে বৃষ্টি তার স্বামীর সঙ্গে উত্তরায় বসবাস করতেন বলে জানা যায়। যাত্রাবাড়ী থানার ওসি বলেন, সম্ভবত স্বামী স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য কলহের জেরে তিনি বাসা থেকে বের হয়ে যাত্রাবাড়ীর ওই হোটেলে ওঠেন।

গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসেই পরিচালক সোহানুর রহমানের স্ত্রী মারা যান। তার স্ত্রীর নাম ছিল প্রিয়া রহমান। স্ত্রীর মৃত্যুর ঠিক ২৪ ঘন্টা পরে মৃত্যু হয় পরিচালক সোহানের। সোহানুর রহমান ও তার স্ত্রীকে পাশাপাশি কবর দেওয়া হয়।

চলচ্চিত্র জীবনে সোয়ানুর রহমান প্রথম থেকে নির্মাতা শিবলী রহমানের সহকারী হিসেবে কাজ করেন। কেয়ামত থেকে কেয়ামত, আমার ঘর আমার বেহেশত, ভালোবাসা ইত্যাদি তার উল্লেখযোগ্য নির্মাণ। আর এই সকল সিনেমা দেখেননি এমস বাঙালি পাওয়া যাবে না।

এমনকি পরিচালক সোহানুর রহমানের হাত ধরে চলচ্চিত্র জগতে পথ চলা শুরু করেছিলেন সালমান শাহ ও মৌসুমির মত অভিনেতা অভিনেত্রীরা। বর্তমানের ঢালিউডের সুপারস্টার শাকিব খানের প্রথম সিনেমার নির্মাতাও তিনি ছিলেন। চলচ্চিত্র জগতে সোহানুর রহমান ছিলেন এক নক্ষত্র সমান।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের মেয়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৩:১৭:৫৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪

গত রবিবার যাত্রাবাড়ীর একটি আবাসিক হোটেল থেকে চলচ্চিত্র পরিচালক শাহানুর রহমান সোহান এর মেয়ে বৃষ্টির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। যাত্রাবাড়ী এলাকার রংধনু নামে একটি আবাসিক হোটেল থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

এব্যাপারে যাত্রাবাড়ী থানার দায়িত্বরত ওসি বিএম ফরমান আলী সাংবাদিকদের কে বলেন, আমরা খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছাই এবং লাশটি উদ্ধার করি। তার পরিচয় জানা যায় যে তিনি চলচ্চিত্র পরিচালক মরহুম সোহানুর রহমান সোহানের মেয়ে। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার পরিবারের লোকজন এসে উপস্থিত হয়।

রংধনু হোটেলের ম্যানেজার শান্ত সাংবাদিকদেরকে বলেন, আজকে দুপুর ২ঃ০০ টার দিকে বৃষ্টি অর্থাৎ সোহানের মেয়ে এখানে আসেন। তিনি যে চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমানের মেয়ে সেটি আমি জানতাম না। আমাদের হোটেলের নিয়ম অনুযায়ী তার জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেন। রুমে ঢোকার সময় তিনি বিছানার চাদর দিতে বলেন নামাজ পড়বেন বলে।

চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের মেয়ের ঝুলন্ত লাশ

তারপর বিকেলের দিকে আমাদের হোটেলের কর্মচারীকে ৪০০ টাকা দিয়ে বলেন ইফতারি এবং ঠান্ডা পানি দিতে। কিছুক্ষণ পর হোটেলের কর্মচারী তার রুমে ইফতারি দিতে গিয়ে দেখে কক্ষটি ভিতর থেকে বন্ধ। অনেক ডাকাডাকির পর কোন সারা শব্দ না পেয়ে দরজা সামান্য ফাঁক করে ভিতরে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়। সাথে সাথেই আমরা পুলিশে খবর দেই।

চলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমানের মেয়ে বৃষ্টি তার স্বামীর সঙ্গে উত্তরায় বসবাস করতেন বলে জানা যায়। যাত্রাবাড়ী থানার ওসি বলেন, সম্ভবত স্বামী স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য কলহের জেরে তিনি বাসা থেকে বের হয়ে যাত্রাবাড়ীর ওই হোটেলে ওঠেন।

গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসেই পরিচালক সোহানুর রহমানের স্ত্রী মারা যান। তার স্ত্রীর নাম ছিল প্রিয়া রহমান। স্ত্রীর মৃত্যুর ঠিক ২৪ ঘন্টা পরে মৃত্যু হয় পরিচালক সোহানের। সোহানুর রহমান ও তার স্ত্রীকে পাশাপাশি কবর দেওয়া হয়।

চলচ্চিত্র জীবনে সোয়ানুর রহমান প্রথম থেকে নির্মাতা শিবলী রহমানের সহকারী হিসেবে কাজ করেন। কেয়ামত থেকে কেয়ামত, আমার ঘর আমার বেহেশত, ভালোবাসা ইত্যাদি তার উল্লেখযোগ্য নির্মাণ। আর এই সকল সিনেমা দেখেননি এমস বাঙালি পাওয়া যাবে না।

এমনকি পরিচালক সোহানুর রহমানের হাত ধরে চলচ্চিত্র জগতে পথ চলা শুরু করেছিলেন সালমান শাহ ও মৌসুমির মত অভিনেতা অভিনেত্রীরা। বর্তমানের ঢালিউডের সুপারস্টার শাকিব খানের প্রথম সিনেমার নির্মাতাও তিনি ছিলেন। চলচ্চিত্র জগতে সোহানুর রহমান ছিলেন এক নক্ষত্র সমান।