ঢাকা ০৪:৪২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঢাকায় ফিলিস্তিন ফুটবল টিম ৪-০

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০২৪
  • / ৩৫ বার পড়া হয়েছে

ঢাকায় ফিলিস্তিন ফুটবল টিম!

ঢাকায় এসেছে ফিলিস্তিন ফুটবল টিম। গত ২১ মার্চ বাংলাদেশের বিপক্ষে ফিলিস্তিন ফুটবল টিম একটি ম্যাচ খেলেছে কুয়েতে। তারপর উভয় টিম বাংলাদেশে এসেছে। কুয়েতে অনুষ্ঠিত এই বাছাই পর্বে বাংলাদেশকে ৫ গোলে হারিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

আর আজ সকাল সাড়ে নয়টায় ঢাকা এসে পৌঁছায় ফিলিস্তিন টিম। সারারাত ধরে ভ্রমণ করায় তারা আজ কোন অনুশীলন করবে না। বাংলাদেশের টিম অবশ্য আজ বিকেলে রিকভারি সেশন করবে।

কিংস অ্যারেনায় ২৬ শে মার্চ বাংলাদেশ ফিলিস্তিনের বিপক্ষে মাঠে নামবে। তার আগে ফিলিস্তিন ফুটবল টিম অনুশীলনের সুযোগ পাবে। এর আগে বাংলাদেশ টিম সৌদি আরব থেকে কুয়েতে যাওয়ার সময় ভিসা জটিলতায় পড়েছিল। বাংলাদেশে আসার সময় ফিলিস্তিন ফুটবল টিমও কিছুটা বিরম্বনার শিকার হয়েছে।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় ফিলিস্তিন ফুটবল টিমের ভিসা নিশ্চিত হয়।
এ ব্যাপারে সহযোগিতা করেন বাংলাদেশ ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মহিউদ্দিন আহমেদ।

ঢাকায় ফিলিস্তিন ফুটবল টিম

বাংলাদেশ ফুটবল টিম বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের ক্ষেত্রে তিন ম্যাচে মাত্র ১ পয়েন্ট পেয়েছে। ফিলিস্তিনে চলমান যুদ্ধ সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। ১৯২৮ সালে সর্বপ্রথম ফিলিস্তিনে একটি ফুটবল ফেডারেশন প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত দলটি ফিফা দ্বারা স্বীকৃত ছিল না।

সর্বপ্রথম ১৯৯৫ সালে ফিলিস্তিন ফুটবল টিমকে ফিফায় অস্থায়ী সদস্যের মর্যাদা দেওয়া হয়। তারপর থেকে বহু চেষ্টা ও পরিশ্রমের পর ১৯৯৮ সালে ফিফার সদস্যপদ অর্জন করে। গত বিশ্বকাপ অর্থাৎ ২০২২ সালে ফিলিস্তিন ফুটবল টিম সৌদি আরব সিঙ্গাপুর ইয়েমেনের সাথে ড্র করেছিল।উজবেকিস্তানের বিপক্ষে ২ গোলে ঐতিহাসিক জয়ের মাধ্যমে তাদের যাত্রা শুরু হয়।

তারপর ২০২৩ সালে অক্টোবরে ইসরাইল হামাস যুদ্ধের কারণে দলটিকে মেরদেকা টুর্নামেন্ট থেকে সরে আসতে হয়েছিল। তারপর ২০২৬ সালের ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রস্তুতি স্বরূপ তারা কুয়েতে ম্যাচ খেলে বাংলাদেশে এসেছে। ফিলিস্তিন ফুটবল টিমের একটি দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে। সেটা নিয়ে আরেকদিন বিস্তারিত লিখব। নিজ দেশে চলমান সংঘাত এড়িয়ে তারা যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা অন্যান্য ফুটবল টিমের জন্য অনুপ্রেরণামূলক

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ঢাকায় ফিলিস্তিন ফুটবল টিম ৪-০

আপডেট সময় : ১১:০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০২৪

ঢাকায় এসেছে ফিলিস্তিন ফুটবল টিম। গত ২১ মার্চ বাংলাদেশের বিপক্ষে ফিলিস্তিন ফুটবল টিম একটি ম্যাচ খেলেছে কুয়েতে। তারপর উভয় টিম বাংলাদেশে এসেছে। কুয়েতে অনুষ্ঠিত এই বাছাই পর্বে বাংলাদেশকে ৫ গোলে হারিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

আর আজ সকাল সাড়ে নয়টায় ঢাকা এসে পৌঁছায় ফিলিস্তিন টিম। সারারাত ধরে ভ্রমণ করায় তারা আজ কোন অনুশীলন করবে না। বাংলাদেশের টিম অবশ্য আজ বিকেলে রিকভারি সেশন করবে।

কিংস অ্যারেনায় ২৬ শে মার্চ বাংলাদেশ ফিলিস্তিনের বিপক্ষে মাঠে নামবে। তার আগে ফিলিস্তিন ফুটবল টিম অনুশীলনের সুযোগ পাবে। এর আগে বাংলাদেশ টিম সৌদি আরব থেকে কুয়েতে যাওয়ার সময় ভিসা জটিলতায় পড়েছিল। বাংলাদেশে আসার সময় ফিলিস্তিন ফুটবল টিমও কিছুটা বিরম্বনার শিকার হয়েছে।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় ফিলিস্তিন ফুটবল টিমের ভিসা নিশ্চিত হয়।
এ ব্যাপারে সহযোগিতা করেন বাংলাদেশ ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মহিউদ্দিন আহমেদ।

ঢাকায় ফিলিস্তিন ফুটবল টিম

বাংলাদেশ ফুটবল টিম বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের ক্ষেত্রে তিন ম্যাচে মাত্র ১ পয়েন্ট পেয়েছে। ফিলিস্তিনে চলমান যুদ্ধ সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। ১৯২৮ সালে সর্বপ্রথম ফিলিস্তিনে একটি ফুটবল ফেডারেশন প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত দলটি ফিফা দ্বারা স্বীকৃত ছিল না।

সর্বপ্রথম ১৯৯৫ সালে ফিলিস্তিন ফুটবল টিমকে ফিফায় অস্থায়ী সদস্যের মর্যাদা দেওয়া হয়। তারপর থেকে বহু চেষ্টা ও পরিশ্রমের পর ১৯৯৮ সালে ফিফার সদস্যপদ অর্জন করে। গত বিশ্বকাপ অর্থাৎ ২০২২ সালে ফিলিস্তিন ফুটবল টিম সৌদি আরব সিঙ্গাপুর ইয়েমেনের সাথে ড্র করেছিল।উজবেকিস্তানের বিপক্ষে ২ গোলে ঐতিহাসিক জয়ের মাধ্যমে তাদের যাত্রা শুরু হয়।

তারপর ২০২৩ সালে অক্টোবরে ইসরাইল হামাস যুদ্ধের কারণে দলটিকে মেরদেকা টুর্নামেন্ট থেকে সরে আসতে হয়েছিল। তারপর ২০২৬ সালের ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রস্তুতি স্বরূপ তারা কুয়েতে ম্যাচ খেলে বাংলাদেশে এসেছে। ফিলিস্তিন ফুটবল টিমের একটি দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে। সেটা নিয়ে আরেকদিন বিস্তারিত লিখব। নিজ দেশে চলমান সংঘাত এড়িয়ে তারা যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা অন্যান্য ফুটবল টিমের জন্য অনুপ্রেরণামূলক