ঢাকা ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকারি চাকুরির পেনশন আপডেট নোটিশ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৪:০০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪
  • / ৩৪ বার পড়া হয়েছে

সরকারি চাকুরির পেনশন

গতবছর সরকার সর্বজনীন পেনশন স্কিমের ঘোষণা দিয়েছিল। আর এবছর সরকারি চাকরিজীবীদের সে সার্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতাভুক্ত করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সেই লক্ষ্যে সরকারি চাকরির পেনশন আপডেট নোটিশ সম্পর্কে আপনাদের অবগত করব।

সরকারি চাকরির পেনশন আপডেট নোটিশে বলা হয়েছে আগামী ১ এ জুলাই বা তারপরে যারা সরকারি চাকরিতে যারা যোগদান করবে তারা সর্বজনীন পেনশন স্কীমের আওতাভুক্ত হবেন। এই স্কিমের নাম হবে প্রত্যয়।
গত ২০ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এই নোটিশটি ঘোষণা করা হয়।

নোটিশ অনুযায়ী, এই মাসের ১৩ মার্চ সরকারের জারিকৃত এস.আর.ও নং-৪৭- আইন/২০২৪ দ্বারা দেশের সকল স্বশাসিত, স্বায়ত্তশাসিত, রাষ্ট্রায়ত্ত/সংবিধিবদ্ধ বা সমজাতীয় সংস্থা কিংবা তাদের অধীনে সকল প্রতিষ্ঠান সমূহে ১ এ জুলাই বা তার পরবর্তী সময়ে যারা নতুন যোগদান করবে তাদের পেনশন ব্যবস্থা সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতাভুক্ত হবে।

সরকারি চাকরির পেনশন আপডেট নোটিশে আরো বলা হয়েছে এর মাধ্যমে চাকুরীতে বিদ্যামান কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বার্থ ক্ষুণ্ন হবে না। যারা ইতিমধ্যে চাকরি করছেন তাদের পেনশন পলিসি আগের মতই থাকবে। তবে যাদের চাকরির বয়স মাত্র ১০ বছর অবশিষ্ট আছে তারা চাইলে প্রত্যয় স্কিমে অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

সরকারি চাকুরির পেনশন আপডেট নোটিশ

সরকারি চাকরির আপডেট প্রদর্শন অনুযায়ী পেনশন প্রক্রিয়া কেমন হবে? প্রত্যয় স্কিমে অংশগ্রহণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা বা কর্মচারীকে মূল বেতনের ১০% অথবা সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা প্রতিমাসে জমা দিতে হবে। এসকল আদায়কৃত টাকা নিয়ে পেনশন ফান্ড গঠিত হবে। তারপর সেই ফান্ড জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ দ্বারা লাভজনক খাদে বিনিয়োগ করা হবে। সেখান থেকে প্রাপ্ত মুনাফা জমাকৃত অর্থের ভিত্তিতে কর্মকর্তা কর্মচারীদের পেনশন হিসেবে প্রদান করা হবে।

চলুন একটি উদাহরণ দিয়ে বিষয়টি পরিষ্কার করে দেওয়া যাক। ধরুন আপনি প্রত্যয় স্কিমে ৩০ বছর ধরে মাসিক ২ হাজার ৫০০ টাকা করে চাঁদা জমা দিয়েছেন। এক্ষেত্রে মোট চাঁদার পরিমাণ হবে ৯ লাখ টাকা। এই টাকার সাথে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান যোগ করবে আরো ৯ লাখ টাকা। সব মিলিয়ে চাঁদের পরিমাণ হবে ১৮ লাখ টাকা। এখন উক্ত ব্যক্তি যদি ৬০ বছর বয়স থেকে পেনশন গ্রহণ করেন তাহলে প্রতি মাসে পাবেন ৬২ হাজার ৩৩০ টাকা করে। আর তিনি যদি ৭৫ বয়সে মৃত্যুবরণ করেন তবে ১৫ বছরে মোট পেনশন পাবেন ১ কোটি ১২ লাখ ১৯ হাজার। পেনশনের টাকা থেকে লাভের পরিমাণ বেশি হলে এই টাকার পরিমাণ আরো বাড়তে পারে। আশা করি সরকারি চাকরির পেনশনের বিষয়টি আপনাদের কাছে একদম পরিষ্কার হয়ে গেছে।

Also: সমাজসেবা অধিদপ্তর নিয়োগ

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

সরকারি চাকুরির পেনশন আপডেট নোটিশ

আপডেট সময় : ০৪:৫৪:০০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪

গতবছর সরকার সর্বজনীন পেনশন স্কিমের ঘোষণা দিয়েছিল। আর এবছর সরকারি চাকরিজীবীদের সে সার্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতাভুক্ত করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সেই লক্ষ্যে সরকারি চাকরির পেনশন আপডেট নোটিশ সম্পর্কে আপনাদের অবগত করব।

সরকারি চাকরির পেনশন আপডেট নোটিশে বলা হয়েছে আগামী ১ এ জুলাই বা তারপরে যারা সরকারি চাকরিতে যারা যোগদান করবে তারা সর্বজনীন পেনশন স্কীমের আওতাভুক্ত হবেন। এই স্কিমের নাম হবে প্রত্যয়।
গত ২০ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এই নোটিশটি ঘোষণা করা হয়।

নোটিশ অনুযায়ী, এই মাসের ১৩ মার্চ সরকারের জারিকৃত এস.আর.ও নং-৪৭- আইন/২০২৪ দ্বারা দেশের সকল স্বশাসিত, স্বায়ত্তশাসিত, রাষ্ট্রায়ত্ত/সংবিধিবদ্ধ বা সমজাতীয় সংস্থা কিংবা তাদের অধীনে সকল প্রতিষ্ঠান সমূহে ১ এ জুলাই বা তার পরবর্তী সময়ে যারা নতুন যোগদান করবে তাদের পেনশন ব্যবস্থা সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতাভুক্ত হবে।

সরকারি চাকরির পেনশন আপডেট নোটিশে আরো বলা হয়েছে এর মাধ্যমে চাকুরীতে বিদ্যামান কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বার্থ ক্ষুণ্ন হবে না। যারা ইতিমধ্যে চাকরি করছেন তাদের পেনশন পলিসি আগের মতই থাকবে। তবে যাদের চাকরির বয়স মাত্র ১০ বছর অবশিষ্ট আছে তারা চাইলে প্রত্যয় স্কিমে অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

সরকারি চাকুরির পেনশন আপডেট নোটিশ

সরকারি চাকরির আপডেট প্রদর্শন অনুযায়ী পেনশন প্রক্রিয়া কেমন হবে? প্রত্যয় স্কিমে অংশগ্রহণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা বা কর্মচারীকে মূল বেতনের ১০% অথবা সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা প্রতিমাসে জমা দিতে হবে। এসকল আদায়কৃত টাকা নিয়ে পেনশন ফান্ড গঠিত হবে। তারপর সেই ফান্ড জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ দ্বারা লাভজনক খাদে বিনিয়োগ করা হবে। সেখান থেকে প্রাপ্ত মুনাফা জমাকৃত অর্থের ভিত্তিতে কর্মকর্তা কর্মচারীদের পেনশন হিসেবে প্রদান করা হবে।

চলুন একটি উদাহরণ দিয়ে বিষয়টি পরিষ্কার করে দেওয়া যাক। ধরুন আপনি প্রত্যয় স্কিমে ৩০ বছর ধরে মাসিক ২ হাজার ৫০০ টাকা করে চাঁদা জমা দিয়েছেন। এক্ষেত্রে মোট চাঁদার পরিমাণ হবে ৯ লাখ টাকা। এই টাকার সাথে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান যোগ করবে আরো ৯ লাখ টাকা। সব মিলিয়ে চাঁদের পরিমাণ হবে ১৮ লাখ টাকা। এখন উক্ত ব্যক্তি যদি ৬০ বছর বয়স থেকে পেনশন গ্রহণ করেন তাহলে প্রতি মাসে পাবেন ৬২ হাজার ৩৩০ টাকা করে। আর তিনি যদি ৭৫ বয়সে মৃত্যুবরণ করেন তবে ১৫ বছরে মোট পেনশন পাবেন ১ কোটি ১২ লাখ ১৯ হাজার। পেনশনের টাকা থেকে লাভের পরিমাণ বেশি হলে এই টাকার পরিমাণ আরো বাড়তে পারে। আশা করি সরকারি চাকরির পেনশনের বিষয়টি আপনাদের কাছে একদম পরিষ্কার হয়ে গেছে।

Also: সমাজসেবা অধিদপ্তর নিয়োগ